বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
143 জন দেখেছেন
"স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে করেছেন (10,983 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (216 পয়েন্ট)

একটা ছোট্ট ঘুম। ৫-১০ মিনিট থেকে শুরু বড়জোর ১ ঘণ্টা যার দৈর্ঘ্য। এই স্বল্পকালীন ঘুমের পর আপনি একেবারে ঝরঝরে, তরতাজা হয়ে নিজের কাজে ফিরে যেতে পারবেন। এই ঘুমেরই অন্য নাম পাওয়ার ন্যাপ, কর্মক্ষমতাবর্ধক ঘুম। কাজের চাপ, দুশ্চিন্তা, শোওয়ার সময় পেরিয়ে যাওয়া - এ রকম কত কারণেই প্রতিদিন আমাদের ঘুমের জন্য নির্দিষ্ট সময়ে ব্যাঘাত ঘটে। ফলে সারাদিন চোখেমুখে, শরীরে এবং মনেও ছেয়ে থাকে একটা ঘুমঘুম ভাব। এই অবসন্নতা কাটাতে পাওয়ার ন্যাপের তুলনা নেই। বৈজ্ঞানিক পরীক্ষা দ্বারা দেখা গেছে, মোটামুটিভাবে ২০ মিনিটের পাওয়ার ন্যাপ আমাদের মস্তিষ্কের তরতাজা ভাব ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করে। তবে বিভিন্ন মানুষের জন্য সময়ের তারতম্য ঘটতে পারে। কাজে উত্‍সাহ ফিরিয়ে আনার জন্য যারা কফি বা অন্য কোনো ক্যাফিনযুক্ত পানীয়ের শরণাপন্ন হন, তাদের জন্য পাওয়ার ন্যাপ একটি কার্যকর এবং সুস্থ বিকল্প।

পাওয়ার ন্যাপের কার্যকারিতা

- স্ট্রেস কমায় এবং কাজে উত্‍সাহ ফিরিয়ে আনে।
- চিন্তা, স্মৃতিশক্তি বাড়িয়ে নতুন তথ্য শিখতে সাহায্য করে।
- করোনারি হার্ট ডিজিজের আশঙ্কা কমায়।
- পাওয়ার ন্যাপ শরীর এবং মনকে বিশ্রাম দেয়। ক্লান্ত শরীর নিয়ে যাদের ব্যায়াম করতে ইচ্ছে করে না, তাদের উত্‍সাহ বাড়বে। ফলে ব্যায়াম করা ইচ্ছে বাড়ায়।
- পাওয়ার ন্যাপ যেহেতু মস্তিষ্ককে খানিকটা বিশ্রাম দেয় এর ফলে সৃজনশীলতা অল্প একটু হলেও বাড়ে।

তথ্যসূত্র: হেলথইস্যু ডটকম

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

365,369 টি প্রশ্ন

461,089 টি উত্তর

144,557 টি মন্তব্য

192,435 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...