বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
78 জন দেখেছেন
"স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে করেছেন (10,983 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (677 পয়েন্ট)
নতুন এক গবেষণায় দেখা গেছে, রাগী মানুষদের হার্টঅ্যাটাকের সম্ভাবনা বেশি। মার্কিন গবেষকদের একটি দল তাদের প্রতিবেদনে জানায়, রাগ প্রায়ই হার্ট অ্যাটাকের কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

কয়েক হাজার মানুষের ওপর পরিচালিত এ গবেষণায় বেরিয়ে এসেছে, মানুষ যখন রেগে ওঠে, তখন হৃদযন্ত্রসহ শরীরের প্রতিটা শিরা-উপশিরায় রক্ত চাপ বেড়ে যায় আশঙ্কাজনক হারে। যাদের রাগ দুই ঘণ্টার বেশি সময় ধরে স্থায়ী হয়, তাদের মধ্যে হার্ট অ্যাটাকের আশঙ্কা বেড়ে যায় পাঁচগুণ আর স্ট্রোকের আশঙ্কা বেড়ে যায় তিনগুন।

হার্ভার্ড স্কুলের গণস্বাস্থ্য বিভাগের গবেষকরা জানান, যেসকল মানুষ মাসে একবার রাগ করেন, তাদের চেয়ে ঘনঘন রাগ করা মানুষের এই ঝুঁকি অন্তত চারগুণ বেশি।

বছরে প্রতি ১০ হাজারে অন্তত চার জন মানুষ একারণে হার্টঅ্যাটাকে আক্রান্ত হয়। আর দিনে অন্তত একবার রেগে যান, এমন মানুষের হিসাবটা আরো বড়। প্রতি ১০ হাজারে ১৫৮ জন আক্রান্ত হন এক্ষেত্রে।

গবেষকদলের প্রতিনিধি ডক্টর মস্টোফস্কি বলেন,‘এই হার কম রাগী মানুষদের ক্ষেত্রে তূলনামূলক হারে অত্যন্ত কম।’তবে রাগ কেন এতোটা ঝুঁকিপূর্ণ, তা এখনো পরিষ্কার নয়। গবেষকদল এখন এই রহস্য উন্মোচনেই কাজ করছেন। বিশেষজ্ঞরা জানেন, দীর্ঘস্থায়ী চাপ হৃদরোগের কারণ হতে পারে, কারণ এটি রক্তচাপ বাড়িয়ে দেয়। কিন্তু মানুষ আরো অনেক কারণেও চাপ অনুভব করতে পারে, যেমন- ধূমপান, মদ্যপান ইত্যাদি। গবেষকদের বিশ্বাস, এক্ষেত্রে যোগ ব্যায়াম বেশ কার্যকরী হতে পারে। কারণ, যোগ ব্যায়াম মানুষের মনের অস্থিরতাকে কমিয়ে আনতে সক্ষম।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
08 অগাস্ট 2019 "আইকিউ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন আহসান আল-হাবিব (743 পয়েন্ট)
1 উত্তর
22 ফেব্রুয়ারি 2015 "প্রেম-ভালোবাসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Kaisar (110 পয়েন্ট)
1 উত্তর
15 মে 2013 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন ontu (1,133 পয়েন্ট)

364,590 টি প্রশ্ন

460,315 টি উত্তর

144,328 টি মন্তব্য

191,964 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...