Posted By

উপেক্ষিত মানুষের উদ্বোধন-আবু তালহা বিন মনির লেখা গল্প

Education 52

১ম পর্ব-----------------

 

 

উপেক্ষিত মানুষের উদ্বোধন 

 

 

        -আবু তালহা বিন মনির

জলমহলে বসবাস আক্কাস আলী সাহেবের ।তিন সন্তান আর স্ত্রীকে নিয়ে বহু কষ্টে জীবন-যাপন করছেন ।বড় ছেলে আরিফ শহরে পড়াশোনা করে ।মেয়ে আয়েশা আর ছোট ছেলে আবির পড়াশোনায় বেশি এগুতে পারেনি ।অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত পড়াশোনা করে আবির বাবার সাথে কাজে লেগে যায় ।অতি দারিদ্র্যের মধ্যে বসবাস করায় সব সন্তানদের পড়াশোনা করাতে পারেননি ।আক্কাস আলীর স্বপ্ন ছিল তিন সন্তানকেই উচ্চ শিক্ষিত করে গড়ে তোলা ।কিন্তু তা আর হলো না ।

 ভাটি অঞ্চলে বসবাস বিধায় মাছ ধরেই জীবিকা নির্বাহ করছেন ।জমি-জমা নেই বলে জেলে হিসেবেই দিন অতিবাহিত করছেন ।পিতৃ সম্পত্তি বলতে শুধু থাকার ভিটেটা ।ছেলে আবিরকে নিয়ে মাছ ধরেই আরিফের পড়াশোনার খরচসহ সংসার চালাচ্ছেন ।এতে খুব হিমসিম খাচ্ছেন ।বড় কষ্টেই তাদের দিন অতিবাহিত হচ্ছে ।এ নিয়ে নানান রকম চিন্তায় থাকেন আক্কাস আলী ।মেয়েটাও বড় হয়েছে ।এ যেন আরেক চিন্তা ।ভাল পরিবার দেখে মেয়েটা বিয়ে দিতে হবে ।উপযুক্ত মেয়ে ঘরে রাখা ঠিক নয়। ইতিমধ্যে প্রতিবেশীরা নানান কথা বলতে শুরু করেছে ।গ্রামের ধনাঢ্য ব্যক্তি করিম সাহেব তো একদিন বলেই ফেললেন-মেয়ে বিবাহের উপযুক্ত হয়েছে ।এবার পাত্র দেখে বিয়ে দাও ।আরিফ সম্পর্কেও তিনি মন্তব্য করলেন ।বলেন-ছেলে কে পড়াশোনা করিয়ে কি করবে?ঘুষ দিয়ে চাকরি করাতে পারবে?আর গরীবের এতো পড়াশোনার কি দরকার?পড়াশোনা করানোর এত টাকাইবা কোথায় পাবে ।বরং ছেলেটাকে একটা কাজে লাগিয়ে দাও । কথাগুলো শুনে আক্কাস আলীর কিছুটা দুঃখ বোধ হয় ।গরীব বলে সমাজে তাদের মুল্য নেই ।গরীব বলে সমাজে সে আজ উপেক্ষিত ।কিন্তু আক্কাস আলী এতে ভেঙে পড়েনি ।সে বিশ্বাস করে তার মতো উপেক্ষিতরাই একদিন সমাজ নিয়ন্ত্রণ করবে ।একদিন ঠিকই সমাজে তার সম্মান বাড়বে ।তার ছেলে প্রতিষ্ঠিত হবে সমাজে।তখন সবাই তাকে বাহবা!দিবে।

 

চলবে -

২য় পর্ব পেতে লাইক কমেন্ট করে সাথেই থাকুন ধন্যবাদ।    

Topics: গল্প

উপেক্ষিত মানুষের উদ্বোধন-আবু তালহা বিন মনির লেখা গল্প

Login to comment login

Latest Jobs