Posted By

ভিডিও গেম আসক্তির ফাঁদে পড়েছেন?

Education 4

বর্তমানে মোবাইল বা পিসি গেম গুলো বিনোদনের অন্যতম মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে। দিন দিন এই ডিভাইসগুলো যেমন সহজলভ্য হচ্ছে তেমনি গেম গুলোও হচ্ছে আরো আকর্ষনীয়। এখন PUBG, Garena Free Fire, Fifa 18 গেম গুলো বেশ জনপ্রিয়। এসব ভিডিও গেমসগুলোর গ্রাফিক্সও আপনাকে সহজেই আসক্ত করে ফেলবে। মূলত প্রত্যেকটি গেম ডেভেলপার-ই চেষ্টা করে তার গেমে সবাইকে আসক্তি করতে। শুধু গেমস-ই নয়; facebook, WhatsApp এর মতো বিভিন্ন সামাজিক ওয়েবসাইট গুলোও তাদের সার্ভিস সমূহতে আসক্তি হওয়ার জন্য কোটি কোটি টাকা রিসার্চে ব্যয় করে সেগুলো আরো আকর্ষণীয় করে তুলে।  আমরাও সেই ফাঁদে জড়িয়ে পড়ি খুব স্বল্প সময়েই।  গেম বিনোদনের জন্য ; তবে আমাদের এই বিষয়টি মাথায় রাখা প্রয়োজন গেমস গুলো বিনোদনের মাত্রা ছাড়িয়ে আসক্তিতে যেনো চলে না যায়। কিন্তু আপনি যদি ইতিমধ্যেই এসব গেমে আসক্ত হয়ে থাকেন তবে আপনি কিছু স্মার্ট নির্দেশনা অনুসরণ করে সেই আসক্তি থেকে বেরিয়ে আসতে পারেন। তো এর আগে বুঝতে চেষ্টা করুন আপনি গেমে আসক্ত কিনা? আর যেহেতু আপনি এই কনটেন্ট টি এখন পড়ছেন সেহেতু আপনি ইতিমধ্যেই বুঝতে পেরেছেন আপনি কোনো গেমে আসক্ত আছেন এবং সেখান থেকে বেরিয়ে আসতে চাচ্ছেন। তো এইসব গেমের আসক্তি হওয়ার  trap থেকে নিজেকে মুক্ত করার কিছু দিক-নির্দেশনা দেখে নিনঃ

১. আমরা অনেকেই আসক্তি থেকে বেরিয়ে আসতে গেমগুলো আনইনস্টল করে দেই অথবা মোবাইল টা নিজেদের থেকে একটু দূরে রাখি। কিন্তু আপনি এসব যতই করেন না কেনো? আপনি গেম টাতে আরো বেশী আসক্ত হয়ে পড়েন বা আবার কিছুদিন পরে রিইনস্টল দেন। অর্থাৎ আপনি জানেন যে আপনি গেমে আসক্ত তবুও আপনি আবারো একই ফাঁদে পড়তে চান। তাই গেমগুলো ফোন থেকে আনইনস্টল না করে নিজের ব্রেন থেকে রিমুভ করার চেষ্টা করুন। এজন্য প্রথমে আপনি নিজেকে রিমাইন্ড করেন আপনি গেমে আসক্ত এবং আপনাকে গেম থেকে বের হতে হবে।

২. আপনি এখন গেমগুলোতে সময় দিয়ে নিজের জীবন থেকে অনেক মূল্যবান সময় ব্যয় করছেন। ফলে ভবিষ্যতে আপনার জীবন নিয়ে আফসোস করবেন যে, কেনো তখন এই গেমগুলো খেলে সময় নষ্ট করেছেন? তো আপনি এখনই চিন্তা করুন যে এই গেমগুলো আপনার ভবিষ্যৎ জীবনে কতটা প্রভাব ফেলবে? তো এখনও কি গেম খেলে সময় নষ্ট করবেন? না কি এই গেম আসক্তির জাল ছিড়ে বেরোনোর চেষ্টা করবেন?

৩. আমরা যখন গেমগুলো খেলি তখন আমাদের মাথায় গেম টি সম্পর্কে যেসব চিন্তা আসে, তা হলো- wow! গেম টার কি চমৎকার গ্রাফিক্স! মাল্টিপ্লেয়ারেও খেলা যায় ইত্যাদি। গেম সম্পর্কে এসব পজিটিভ দিকগুলো ভাবতে থাকি। কিন্তু আপনি যদি গেমসমূহের নেগেটিভ দিকগুলো খুঁজে বের করেন এবং নিজেকে সেগুলো বারবার রিমাইন্ড করেন তাহলে অনেকাংশেই আপনি সেই গেমের আসক্তি থেকে বেরিয়ে আসতে পারবেন।

Topics: মোবাইল গেম গেম আসক্তি

ভিডিও গেম আসক্তির ফাঁদে পড়েছেন?

Login to comment login

Latest Jobs