অভিমানি ভালোবাসা

Fashion 33

আজ কয়েক দিন যাবৎ দিয়ার সাথে কোনো যোগাযোগ নেই হিমেলের । ফোন টাও বন্ধ করে রেখে দিয়েছে ,জানি না কি অভিমানে ফোন টা অফ করে রেখেছে ,এইটুকু ভুল বোঝাবুঝি এর আগে ও হয়েছে।এদিকে দিয়ার সাথে কথা না বলতে পেরে হিমেল খুব টেনশনে আছে । মাঝে মাঝে ঝগড়া হলে দিয়াই আগে ফোন দিয়ে রাগ ভেঙ্গে দিতো ।কিন্তু ৩ দিন হয়ে গেলো দিয়ার কোনো খবর নেই । দিয়ার কোনো খবর না পেয়ে অবশেষে দিয়ার মায়ের ফোনে ফোন করে হিমেল .. আসসালামু আলাইকুম আন্টি?__ওয়ালাইকুম আসসালাম,কে তুমি বাবাজি ।__ আন্টি আমি হিমেল চিনতে পেরেছেন। __ হ্যা বাবা চিনতে পেরেছি?__ আন্টি দিয়া আছে ।__হ্যা আছে ।__একটু দিয়ার কাছে দেওয়া যাবে ।__একটু লাইনে থাকো দিচ্ছি ,ওপর পাশে দিয়া ? কে বলছেন ।__দিয়া আমি হিমেল । __কোন হিমেল ,আমি কোনো হিমেল কে চিনি নাহ আপনি ফোন রাখেন ,তা নাহলে আমি রেখে দিবো । __ প্লিজ রাগ করো নাহ,আমি তোমার সাথে বাজে ব্যাবহার করার জন্য সত্যি দুঃখিত ।__কিসের দুঃখিত ,আমার সাথে তো আপনি বাজে ব্যাবহার করেন নি ।_ _ প্লিজ দিয়া অমন ভাবে বলো নাহ ,তোমার সাথে আজ কয়দিন কথা না বলে থাকতে পারি নাই ,আমার কিভাবে যে এই কয়টা দিন গেছে কিছুই বলতে পারবো নাহ ।__থাকতেই যখন পারবে নাহ ,তাহলে আমার সাথে এমন করলে ক্যানো ।__মাঝে মাঝেই তো একটু ঝগড়া করি ,কিন্তু এইবার একটু বেশি করে ফেলেছি ?আমাকে মাফ করে দাও প্লিজ ।__মাফ করতে পারি একটা শর্তে । __ তোমার জন্য হাজারো শর্ত পালন করতে পারি ,বলো তোমার শর্ত কি ।__ আমাকে এখন এত্তো জোরে আই লাভ ইউ বলতে হবে ।__এই টা কি বলো এইটা কোনো শর্ত হলো আচ্ছা বলছি ,আই লাভভভভভভভভ ইউ ।__এই এতো জোরে বললে কেনো আমার কান ব্যাথা করছে ।__তুমিই তো বললা ।__হুম ভালো করছো । বিকালে দেখা হবে সেই আম গাছের নিচে ।__ওকে তোমার ফোন টা এখন খোলা রেখো ,বিকালে দেখা হবে বাই ।__ ওকে বাই .. অবশেষে সেই অভিমানির রাগ টা ভাঙ্গাতে সক্ষম হলো হিমেল ।হঠাৎ করেই দিয়া আর হিমেল এর পরিচয় হয় কলেজ থেকে । ওরা এক ই ক্লাসের পড়তো , প্রতিদিন চোখাচোখি তার পর কথা বলা তার পর ফোন নাম্বার আদান প্রদান অত এব পর প্রপোজ ।বেশ ভালোই চলছিলো তাদের ঝগড়াটে প্রেম । সারাক্ষন ঝগড়া লেগেই থাকতো ওদের দুজনের । আবার ওরা দুজন দুজন কে খুব ভালোও বাসতো । হিমেল আর দিয়ার প্রেম প্রায় একবছর হয়ে এলো । দিয়া আবার কেমন জানি হয়ে অমলিন হয়ে গেছে ,আগের মত বেশি সময় কথা বলতে চায় নাহ ।কিছুদিন আগেও সারারাত কথা হয় ওদের দুজনের !কিন্তু এখন বেশি সময় কথা বলে নাহ ,৩ থেকে ৫ মিনিট কথা বলেই রেখে দিতে চায় । দিয়ার নাকি মাথা ব্যাথা করে বেশি সময় কথা বললে ________আজ দিয়ার সাথে লেকে বসে কথা বলছিলাম .. .. দিয়া তুমি এতো চেন্জ হলে কিভাবে । __ কি যে বলো নাহ চেন্জ হবো ক্যানো ।__ না আগের মত এখন ফোনে বেশি কথা বলো না যে তাই ।__ আসলে এখন বেশি কথা বললে আমার মাথা ব্যাথা করে ।__ডাক্তার দেখাও । __ দেখিয়েছি ডাক্তার বলেছে এটা কোনো ব্যাপার নাহ ।__ তুমি আমার থেকে কিছু লুকানোর চেষ্টা করছো । __কই না তো ।__তোমার কোনো বড় সম্যসা হয়েছে ।__ না হিমেল তোমার ভূল ধারনা ,তুমি আমাকে নিয়ে শুধু শুধু টেনশন করো ।_ _ও ,কিছু খাবা ।__না কিছু খাবো নাহ ,চলো চলে যাই ।__তোমার কি খারাপ লাগছে । __হ্যা চলো চলে যাই ।__ আচ্ছা চলো__________ .. .. সেইদিন রাতে শুধু কয়েক মিনিট দিয়ার সাথে কথা হয় হিমেলের ।কথা গুলা খুব গুরুত্বপূর্ন কথা ,দিয়া সেই লুকানো কথা সেই দিন রাতেই বলে দেয় ।দিয়ার ব্রেন ক্যান্সার হয়েছে ,ডাক্তার বলেছেন দিয়া বেশি দিন বাঁচবে নাহ ।তবে আজ কেই এই নীল পৃথিবী থেকে চির বিদায় নিতে পারেন ।এই সব কথা শুনে হিমেল একেবারেই ভেঙ্গে পরে । দিয়া ফোন টা কেটে দিয়ে অফ করে রেখে দিয়েছে !সারারাত হিমেলের চোখে ঘুম নেই দিয়ার মুখে ওই কথা শোনার পর । সারারাত এ পাশ ও পাশ হয়ে শুধু চোখের জল ফেলেছে । কি ভাবে যে ঘুমিয়ে পড়েছে তা হিমেল খেয়াল ই করে নি ।সকালে দিয়ার মায়ের ফোন ,অনেক কষ্ট বুকে রেখে দিয়ার মায়ের ফোন টা রিসিভ করে ।ফোন টা রিসিভ করে যা শুনতে পেলো ।সেই কথা শোনার সাথে সাথে হিমেল এর হাত থেকে ফোন টা পরে যায় ।এবং পাগলের মত দৌড়ে ছুটে যায় দিয়াদের বাসায় ।বাসায় গিয়ে দেখতে পায় বাসা ভর্তি মানুষ ।কান্নার আওয়াজ ভেসে আসছে তার মায়ের গলার । দিয়ার লাশের পাশে হাটু গেরে বসে পরে হিমেল । কোনো প্রেমিক ই এইরকম অবস্তা দেখে নিজে কে শান্ত রাখা যায় নাহ,শুধু চোখ দিয়ে জল পরছে কয়েক ফোঁটা । দিয়ার মা হিমেল কে দেখে একটা চিঠি দেয় ।এই চিঠি টাই ছিলো দিয়ার শেষ স্মৃতি । .. .. চিঠিতে লিখা ছিলোঃআমি চলে গেলাম হিমেল?তোমার সাথে কাটানো প্রত্যেক টা মুহুর্ত ,ঝগড়া করা সব কিছু কে অনেক মিছ করবো ।সব থেকে বেশি মিছ করবো তোমাকে । আর তোমার কাছে আমার একটা শেষ অনুরোধ তুমি নিজেকে কষ্ট দিয় না আর তোমার জীবন নতুন করে গড়ো।তুমি আমার মত অন্য কোনো মেয়ে কে বিয়ে করে তুমি তোমার জীবন টা রাঙিয়ে নিও । ভালো থেকো ,তোমাকে খুব মিছ করবো___

Topics:

অভিমানি ভালোবাসা

Login to comment login

Latest Jobs