Posted By

পাঁচটি ভয়ংকর রেলপথ

Education 23

বন্ধুরা, পৃথিবীর সবদেশেই একটি জনপ্রিয় গনপরিবহন হলো রেল। কারণ ট্রেনে চড়েই অল্প সময়ে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় নিরাপদে ও রিল্যাক্স-এ যাওয়া যায়। বহু সিনেমায় আমরা ভয়ংকর একটি দৃশ্য দেখি- উঁচু ব্রিজ থেকে ট্রেন পড়ে যাচ্ছে। শুধু সিনেমায় নয়, বাস্তবেও এমন কিছু জায়গা রয়েছে যে জায়গাগুলো দিয়ে ট্রেন যাওয়ার সময় আমাদের হার্টবিট বেড়ে যায়, আমরা ভয়ে শিউরে উঠি। এমনই পাঁচ ভয়ংকর রেলপথ নিয়ে আমাদের আজকের আয়োজন। তাহলে বন্ধুরা, দেখে নেয়া যাক এমনই পাঁচ ভয়ংকর রেলপথ।

 

   ১. রামেস্বরাম রুট - চেন্নাই, ভারত : 

                           ভারতীয় এমনই একটি ভয়ংকর রেলপথ আছে যা সমুদ্রের উপর দিয়ে গেছে। ট্রেন যখন ব্রিজের উপর ‍দিয়ে যায় তখন ভয়ে মানুষের শ্বাস বন্ধ হয়ে যায়। দুই কিলোমিটার লম্বা এই  ব্রিজটি তৈরির কাজ ১৯১১ সালে শুরু হয় এবং ১৯১৪ সালে শেষ হয়। পৃথিবীর সব ‍ব্রিজ পানি থেকে অনেক উঁচুতে করা হয়, কিন্তু এটি সেগুলোর থেকে আলাদা। কারণ এটি অনেক নীচু এবং পানির খুব কাছাকাছি। ১৯৬৪ সালে একবার তো নদীতে ভয়ংকর তুফান উঠেছিল এবং ১৫০ জন যাত্রী তাদের প্রাণ হারিয়েছিলেন। 

 

   ২. হোয়াইট পাস এ্যান্ড ইউকন ‍রুট রেইলরোড - আলাস্কা :

                               ১৭৫ ‍কি:মি: দীর্ঘ এই রেলওয়ে পথ আমেরিকা ও কানাডার মাঝে সংযোগ হিসেবে কাজ করে। এই রেলওয়ে পথ আলাস্কার ভয়ংকর জায়গার মাঝ দিয়ে গেছে। ১৮৭৯ সালে যখন এই জায়গায় সোনার অনুসন্ধান করা হচ্ছিল তখন এই রেলওয়ে ট্রাকের নির্মান করা হয়েছিল। আজও এই রেলওয়ের কিছু কিছু অংশ কাঠের তৈরি। এরকম ভয়ংকর জায়গা ছাড়াও ট্রেনটি ছোট ছোট সুড়ঙ্গের মধ্য দিয়ে যায়। এই ট্রেনে ভ্রমণকারী মানুষ যখন উঁচু ‍ব্রিজের উপর দিয়ে পার হয় তখন ভয়ে তাদের রক্ত হিম হয়ে যায়। কখনও কখনও এই ব্রিজের উচ্চতা ৩০০০ ফুটেরও বেশি হয়ে দাঁড়ায়। শীতকালে এই জায়গা দিয়ে পার হওয়া আরোও ভয়ংকর একটি বিষয়। শীতল বাতাস এবং অন্ধকার সুড়ঙ্গগুলো দিয়ে ট্রেন পার হবার সময় যদি আপনি ভয় না পান তাহলে আপনি অবশ্যই বিশ্বের সবচেয়ে সাহসী ব্যক্তির খেতাব পাওয়ার দাবী রাখেন। 

 

   ৩. এ্যালবুলা রেইলওয়ে - সুইজারল্যান্ড:

                                সুইজারল্যান্ডের পাহাড়ের উপর দিয়ে চলে যাওয়া ট্রেনকে দেখতে সবারই খুব ভালো লাগে। তাই ইউনেসকো এটাকে ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ হিসেবে ঘোষণা করেছে। আসলেই এই জায়গাটিকে দেখলে মনে হয় এটি পৃথিবীর বুকে সবচেয়ে সুন্দরতম জায়গা। ৫৫ টি ‍ব্রিজ এবং ৩৯ টি সুরঙ্গের মধ্য দিয়ে যাওয়া এই রেলওয়ে পথের সবচেয়ে আকর্ষণীয় জায়গাটি হলো ল্যান্ড ওয়সার ব্রিজ। মাটি থেকে ২১৩ ফিট উঁচু এই ব্রিজ সত্যিই দৃষ্টিনন্দিত। চারদিক ঘুরে ঘুরে ট্রেন যখন এই ব্রিজের উপর উঠে তখন মনে হবে আপনি ফ্যান্টাসি কিংডমের কোন রাইডে বসে আছেন। এই জায়গাটি এতো সুন্দর যে আপনার চোখ ভরবে না। কিন্তু এটি আপনার সাহসের এক কঠিন পরীক্ষা নিয়ে নিবে। 

 

 

   ৪.  গোটিক ভায়াডাক্ট - মিয়ানমার ট্রেন:

                                যারা সবসময় রোমাঞ্চের খোঁজ করতে থাকেন তারা মায়ানমারে এই ট্রেনে ভ্রমণ করার জন্য যেতে পারেন। এই রেল পথটি মায়ানমারের পাইন ‍ও লুইন এবং লেসিও এই দুটো শহরকে সংযুক্ত করেছে। আর এই পথের ভয়ংকর ব্রিজটি গোটিক ব্রিজ নামে পরিচিত। মাটি থেকে ৩৩৫ ফুট উঁচু এই ব্রিজ ১৯০০ সালে বানানো হয়েছিল। প্রায় ১১৮ বছরের পুরনো এই ‍ব্রিজের উপর দিয়ে ট্রেন যখন খুব আস্তে আস্তে চলতে থাকে তখন ভ্রমণকারীদের শ্বাসও আস্তে আস্তে পড়তে থাকে। ভয়ে তারা কাঠ হয়ে যায়। তারপরেও পর্যটকরা এই রোমাঞ্চকর দৃশ্যটি তাদের ক্যামেরাবন্দী করতে ভুলেন না। মৃত্যুর ভয় এবং বাতাসের শো শো শব্দের এক ভয়ংকর অনুভূতি। তারপরও এই এ্যাডভেঞ্চার মুহুর্তগুলোকে অনুভব করার জন্য পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে পর্যটকরা এদেশে বেড়াতে আসেন। 

 

 

   ৫.  ডেভিল’স নোস ট্রেন - ইকুয়েডর:

                                 পাহাড়ের অংশটির আকৃতি মানুষের নাকের মতো এবং এর উপর দিয়েই ঘুরে ফিরে গেছে ভয়ংকর রেল লাইনটি। তাই এটাকে ডেভিল’স নোস বলা হয়। এখানে জিগজাগ্ রোডের কারণে প্রতি মুহুর্তে ভ্রমণকারীদের কাছে মনে হয় ট্রেন উপর থেকে নীচে পড়ে যাচ্ছে। কিন্তু আসলে এমনটি ঘটে না। পাহাড় কেটে ট্রেনের এই রাস্তাটি তৈরি করা হয়েছে। তাই এর এক পাশে রয়েছে পাহাড় কিন্তু অপর পাশে আছে সুগভীর খাদ। এখানে ট্রেন ধীরে ধীরে সামনে যেতে থাকে। সব মিলিয়ে এটি আপনার মাঝে একটি ভয়ংকর অনুভূতি এনে দেবে। এই ট্রেন ভ্রমণে সবচেয়ে লোমহর্ষক জায়গা হলো মোচড়গুলো। অর্থাৎ রেল লাইন এখানে এমনভাবে বাঁক নিয়েছে যেন প্রতিটি বাঁকেই মনে হয় এই বুঝি ট্রেন পড়ে গেলো। একবার ভেবে দেখুন তো, এখান থেকে ট্রেন একবার যদি পড়ে যায় তবে কেউ কি বেঁচে থাকতে পারবে? 

Topics: রেলপথ পাঁচটি ভয়ংকর রেলপথ ভ্রমণ

পাঁচটি ভয়ংকর রেলপথ

Login to comment login

Latest Jobs