Posted by

প্রেম ভালোবাসায় লিপ্ত

Education 18

যারা প্রেম ভালোবাসায় লিপ্ত আছেন কিন্তু মনে মনে এক ধরনের অপরাধবোধ কাজ করছে।আপনি জানেন বিয়ের পূর্বে কিংবা বিয়ে বহির্ভূত নারী পুরুষের যেকোন ধরনের সম্পর্ক ইসলামে হারাম কিন্তু বের হয়ে আসতে পারছেন না। তারা নিচের বিষয় গুলোতে স্ট্রীক্ট হতে পারেন। ইনশা আল্লাহ্ হারাম সম্পর্ক থেকে বের হয়ে যাওয়া সহজ হবে আপনার জন্য..

১) আল্লাহ্ আপনাকে যে হিম্মত দিয়েছেন সেটা কাজে লাগানঃ অর্থাৎ নেক কাজ করার প্রবল আগ্রহ আর গুনাহ পরিত্যাগ করার দৃঢ় প্রচেষ্টাকে কাজে লাগান। আপনার নাফস স্বভাবতই আল্লাহর আনুগত্য করতে চায়,আল্লাহর ইবাদাত করতে চায় কিন্তু আপনি সেটাকে ভালো কাজে না লাগিয়ে হারাম কাজে ব্যস্ত রাখছেন। তাই পরিবর্তনের আন্তরিক প্রচেষ্টা আপনার থেকেই সবার আগে আসতে হবে আর বাকীটা সহজ হয়ে যাবে বিইজনিল্লাহ।আল্লাহর পথে আপনি সাহস করে এক কদম ফেলুন দেখবেন আল্লাহর সাহায্যে আপনি দশ কদম এগিয়ে গিয়েছেন।

২) নিজে আল্লাহর কাছে বেশি বেশি দু'আ করাঃহারামের জন্য অনুতপ্ত, অনুশোচনা করবেন। অনেক মানুষ প্রেম ভালোবাসা হারাম জানার পর ও এর থেকে অদৃশ্য কোন কারনে এর থেকে বের হয়ে আসতে পারছে না শুধু হিম্মতের অভাবে।তাকে ছাড়া আমি বাঁঁচব কি করে? আমাদের এত এত স্মৃতি এত এত স্বপ্ন সব কি বৃথা হয়ে যাবে?

বিশ্বাস করুন ভাই-বোনেরা এসব শায়তানের মারত্মক ধোঁকা বৈ আর কিছুই নয়। আপনি আল্লাহর জন্য একটা হারাম সম্পর্ক ত্যাগ করেই দেখুন আল্লাহ আপনার অন্তরে সুকুন(প্রশান্তি) ঢেলে দিবেন যা হাজার লক্ষ টাকা দিয়ে কেনা সম্ভব নয়। আল্লাহর জন্য আপনি কাউকে ত্যাগ করুন আল্লাহ্ আপনাকে তার চাইতে উত্তম ব্যক্তিকে আপনার জীবনে এনে দিবেন।হারাম প্রেম ভালোবাসায় জড়িয়ে আপনার অন্তরকে কলুষিত করবেন না। নিজেকে এমন একজনের জন্য ইনটেক রাখুন যার কাছে বুকে হাত দিয়ে বলতে পারবেন,''তুমি এমন একজনকে স্বামী/স্ত্রী হিসেবে পেয়েছ যে শুধুমাত্র তোমাকে পাওয়ার জন্য এতগুলো বছর নিজেকে সব ধরনের অপবিত্রতা থেকে হিফাজত করেছে। তুমি আমার প্রথম প্রেম। "

৩) সর্বদা জিহ্বাকেআল্লাহর যিকিরে ব্যস্ত রাখাঃঅলস, বেকার হয়ে বসে থাকবেন না। অলস মস্তিষ্ক শয়তানের কারখানা। যখন আপনি অলস,অকর্মণ্য হয়ে বসে থাকবেন শয়তান তখন আপনাকে নিয়ে খেলবে, হারাম কাজে সহজেই লিপ্ত করিয়ে দিবে। তাই সব সময় আল্লাহর যিকির করতে ট্রাই করবেন পাশাপাশি দুনিয়াবি ছোট বড় যোকোন কাজে ব্যস্ত হয়ে যান।

৪) যে পুরুষ/নারীর সাথে আপনি হারাম সম্পর্কে লিপ্ত আছেন তাদের ক্ষুদ্রতার কথা,খারাপ দিক গুলোর কথা চিন্তা করুনঃআপনি একটা পরনারীর কাছে কিভাবে নিজের হালাল আবেগ ভালোবাসা গুলো ঢেলে দিচ্ছেন? আপনি না পুরুষ! আল্লাহ্ জান্নাতে আপনার জন্য এমন পূত-পবিত্র স্ত্রীগন রেখেছেন। যাদের দুনিয়াবি কোন পুরুষ কোন দিন স্পর্শ করে নাই। দুনিয়াবি কোন অপবিত্রতা তাদের ছুঁতে পারেনাই। আল্লাহ্ আপনার জন্য জান্নাতে সেসব স্ত্রীগন রেখেছেন আপনি কি তাদের পেতে চান না? যারা আপনার জন্য উদগ্রীব হয়ে অপেক্ষা করছে।

আর আপনি যদি নারী হোন তাহলে চিন্তা করুন একজন বেগানা,অচেনা পুরুষের কাছে আপনি এত সস্তায় নিজের ইজ্জত বিকিয়ে দিচ্ছেন? আপনার ইজ্জাত,সম্মানের মূল্য কি এতই তুচ্ছ?এতই নগন্য? অথচ আপনিই এই উম্মাহর সম্মান,আপনি উম্মাহর গৌরব। আপনি তো আপনার স্বামীর জন্য রাজ রানী হওয়ার কথা। তার জন্য নিজেকে পবিত্র রাখার কথা। কিন্তু আপনি কি করছেন? একবার ও অনুশোচনা হয় না?

৫) যে বস্তু বা যেসব কাজ পাপের দিকে নিয়ে যায় সেসব ব্যক্তি, বস্তু এবং সেই সব পথ বা উপকরণ থেকে পুরাপুরি দূরে থাকাঃধরুন আপনি ফে'বুকে কারো সাথে পাপে লিপ্ত আছেন ফেবুক বাদ দিয়ে দিন। মোবাইলে কারো সাথে জিনাহতে লিপ্ত আছেন মোবাইল থেকে দূরে থাকুন। চিরতরে হারাম সম্পর্ক গুলো ক্লোজ করে দিন। আর যে সমস্ত উপকরণ হারামের দিকে আহবান করে সেগুলো ও বর্জন করুন।

৬)সর্বোপরি নেককারদের সোহবতে থাকতে চেষ্টা করুন। কোন বুজুর্গ কিংবা আল্লাহ ওয়ালার মাধ্যমে ইসলাহির (আত্মশুদ্ধি) করবেন। দ্বীনি সার্কেল কিংবা কমিউনিটির সাথে যোগাযোগ রাখবেন। নিয়মিত শরীরচর্চা করুন। নিজেকে ফিট রাখুন।সাপ্তাহিক সোম এবং বৃহস্পতিবার সিয়াম রাখুন।

Topics:

প্রেম ভালোবাসায় লিপ্ত

Login to comment Login

You're not logged-in.

Login  — or —  Create Account
Latest Jobs

ক্লোজউই বাংলাদেশে তৈরি