একজন সফল উদ্যোক্তা বা ব্যাবসায়ীর করনীয়

Career 147

আমাদের দেশে অনেক উদ্যোক্তাই আছেন যারা অদম্য গতি নিয়ে একটি ব্যাবসা শুরু করার কিছুদিন পরেই মুখ থুবড়ে পড়েন। আর এক শ্রেনী আছেন যারা সফল উদ্যোক্তা হয়ে নজির গড়লেও তারাও একসময় গতিপথ হারিয়ে থমকে যান বা ব্যাবসা বন্ধ করে দিতে বাধ্য হন, আমার এই লেখাটা তাদের জন্য যারা তার ব্যাবসা সফল করতে চান বা মন্দা কাটিয়ে উঠে সফল হতে চান।

 

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ইন্ড্রাস্টিয়াল হেলথ বিশেষজ্ঞ বা কনসালটেন্ট হিসাবে অনেক মানুষ কাজ করেন যারা ভঙ্গুর কোম্পানী/ইন্ডাস্ট্রি অথবা লসে পড়া কোম্পানীর উন্নয়নকল্পে কাজ করেন। আসুন আজকে আমরা এরকম একটা সম্যক ধারনা নেই।

 

ধরুন আপনি একজন ব্যাবসায়ী। সেটা হতে পারে রেস্টুরেন্ট, রেডি গার্মেন্টস, উতপাদনকারী বা বিপননকারী। আপনার ব্যাবসাটি শুরু করার আগে আপনাকে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কিছু বিষয়ের উপর দৃষ্টি আরোপ করতে হবে।

 

নতুনদের ক্ষেত্রেঃ আপনি কি ব্যাবসা করছেন, কোন এলাকাভিত্তিক করছেন, সেই এলাকার জনসংখ্যা ও তাদের জীবনযাত্রার মানের সাথে পণ্যের সমন্বয় আছে কিনা বা কতটুকু থাকা জরুরী, পণ্যের সাম সহনশীল কিনা, একই এলাকায় এরকম পণ্য নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী কোন ব্যাক্তি বা প্রতিষ্ঠান কাজ করছে কিনা, যদি করে তাহলে তারা কতদিন ধরে করছে, অনুমেয়ভাবে তাদের বর্তমান ব্যাবসায়ীক অবস্থা কেমন, তারা কি কি নিয়ম বা পলিসি অনুসরন করছে, তাদের পণ্যের দাম কেমন, তাদের পণ্যের মান কেমন।

 

পুরাতন কিন্তু লস করছেন যারাঃ আপনি যখন ব্যাবসা শুরু করেছিলেন তখন ব্যাবসা কেমন ছিল, শুরু থেকে এখন অবধি কি আপনি লসেই আছেন নাকি, কোন সময়টা ভাল ছিল, সেই সময় এবং বর্তমান সময়ের মধ্যে পার্থক্য কি, আপনি কি পণ্যের মান একই রকম রেখেছেন, আপনার বর্তমান মার্কেটিং ব্যাবস্থা কেমন, আপনি কি আপনার প্রতিষ্ঠানে ন্যুনতম আধুনিকতা বজায় রেখেছেন, আপনার ব্যাবসা খারাপ শুরু হয়েছিল কোন সময়ে, বর্তমান বাজারে আপনার অবস্থান কি, পন্য রিলেটেড মানুষ কি চায়, আপনার ব্যাবসাটি কাঙখিত সেবা দিতে পারছে কি।

 

উপরোক্ত কারনগুলো এক যায়গা করলেই সুন্দর একটি সমাধান আপনি পেয়ে যাবেন। আসলে একজন উদ্যোক্তা যখন শুরু করেন সেই থেকে শুরু করে তার ব্যাবসায়িক সাফল্য, অর্জন সবকিছুই কঠোর পরিশ্রম এবং সু-নির্দিষ্ট কর্মপরিকল্পনার মাধ্যমে ধরে রাখতে হয়। একজন সফল উদ্যোক্তা হতে আপনাকে অনেক খারাপ সময়ের মধ্য দিয়ে যেতে হবে এটাকেই অভিজ্ঞতা বলে। তাই ব্যাবসায়ী ভাই/বোন আপনারা হতাশ না হয়ে আপনার প্রতিষ্ঠানের সমস্যাগুলো আগে খুজে বের করুন এবং একজন পরামর্শক এর সাথে উক্ত বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করুন। মনে রাখবেন সময়ের সাথে আপনাকে ততটাই আধুনিক হতে হবে যতটা আধুনিকতা প্রয়োজন। কোন ব্র‍্যান্ড ইমেজ দিয়ে বা এক ঘেয়েমি সিদ্ধান্তে সফল হওয়া যায়না। কোডাক বা নোকিয়ার মত কোম্পানীর কথা মনে রাখবেন যারা যথেস্ট সফল হওয়া স্বত্ত্বেও শুধুমাত্র সঠিক পরিকল্পনা ও আধুনিক সিদ্ধান্তের অভাবে মুখ থুবড়ে পড়েছে। মিলিয়ন মিলিয়ন ডলার আয় করেও শেষ পর্যন্ত সেই বাজার ধরে রাখতে পারেননি এবং উলটো লসে পড়েছেন

 

ধন্যবাদ।

(লেখকঃ রবিউল ইসলাম রুবেল)

 

Topics:

একজন সফল উদ্যোক্তা বা ব্যাবসায়ীর করনীয়

Login to comment login

Latest Jobs