Posted by

বৃদ্ধদের প্রতি যত্নবান হোন ;একদিন আপনাকেও বৃদ্ধ হতে হবে!

Education 55

বৃদ্ধ বয়সে মানুষ অসহায় থাকে,কিছুটা বাচ্চাদের মত।কিন্তু বাচ্চাগুলো আমাদের কাছ থেকে যে আদর ভালবাসা পায় বৃদ্ধ তার ছিটেফোঁটাও পায়না।

তাই  অনেকের আশ্রয়স্থল হয় বৃদ্ধাশ্রম।

 

আমরা প্রায় প্রত্যেকেই কোন না কোন ভাবে বৃদ্ধাদের সাথে পরিচিত যারা সমাজে আজ অবহেলিত।

সেদিন এক বৃদ্ধাশ্রমে গিয়েছিলাম,তাদেরকে দেখে মনে হল তারা খুব সুখী।তবে যখন তাদের কাছে জিজ্ঞাসা করলাম কেমন আছেন,এখানে। তখন তাদের হৃদয় চিরে যেন বেরিয়ে এলো  আর্তনাদ।তাদের সেসব করুন কাহিনী শুনে নিজেকে সামলাতে পারছিলাম না।তাদের বর্ণনায় তারা যে সমাজে বাস করে এসেছে ,আমার কাছে সেটাকে পৃথিবীর কোন স্থান মনে হচ্ছিল না।

 

সেদিন ফেসবুকের এক ভিডিও ক্লিপ দেখে আমি যেন থমকে গেলাম।বৃদ্ধ এক বাবাকে তার নিজের সন্তান গায়ে হাত তুলছে।একবার না, বারবার!ভাবতেই অবাক লাগে তারা কি মানুষ?

কিছুদিন আগেও যার উপর নির্ভরশীল ছিলেন,যার টাকায় আজ আপনি বাড়ি গাড়ি করলেন,সেই বাবার সাথে মানুষ এরকম বেয়াদবি কি করে করতে পারে।তা আমার জানা নেই।ইসলাম ধর্মে বৃদ্ধদের নিয়ে অনেক কথাই বলা হয়েছে।অন্যান্য ধর্ম গুলোতে ও তাদের নিয়ে অনেক কিছুই উল্লেখ আছে।কিন্তু আমরা তা কতজনই বা মেনে চলি।

 

বাবা মা তার সন্তানের জন্য নিঃস্বার্থভাবে সবকিছু করে থাকে।কিন্তু সন্তান সেভাবে করে না।সে প্রচারণা চালায়, সবাইকে বলে বেড়ায়।বাবা-মায়ের জন্য জা করে তা নিয়ে। এ যেন, ছেলেবেলায় পড়া সেই কবিতার মত,"শৈবাল দিঘিরে বলে উচ্চ করি শির,লিখে রেখো,দিলাম এক বিন্দু শিশির।"

 

সেদিন পত্রিকার এক সংবাদে পড়লাম, ৬৫বছরের বেশি বয়স্ক বৃদ্ধরা,বিভিন্ন ধরনের অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে! যার মূল কারণ হচ্ছে তাদের আশ্রয়ের অভাব! খাবারের অভাব ।তারা আশ্রয় হিসেবে বেছে নিচ্ছে জেলখানা।

 

বৃদ্ধ ব্যক্তি আমাদের সমাজে আজ নিজ ঘরে পরবাসী।অবসরের পর তারা অসহায়।তিল তিল করে গড়ে তোলা সংসারে তারা আজ কেউ নয়।তারা যেন আমাদের জন্য বোঝা।

 

আমরা কেন ভুলে যাই! আমরা ও একদিন বৃদ্ধ হব ।আমাদের অবস্থা ও তাদের মতো হতে পারে।বৃদ্ধ ব্যক্তিরা আমাদের কাছ থেকে কিছুই চায় না, চায় শুধু একটু ভালোবাসা।

ঘরে যাদের বৃদ্ধ দাদা -দাদি আছে তাদের প্রতি একটু যত্নবান হন।দেখবেন আপনার জীবনটা আনন্দে ভরে যাবে ।তাদেরও মনটা হালকা হবে।

 

আপনার বাড়ির পাশের বৃদ্ধ মানুষটাকে আর অপমান, অপদস্ত হতে দিবেন না।আপনি যদি এর বিচার না করেন তাহলে আল্লাহর কাছে বিচার দিতে হবে।অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দেখা যায়, কেন আমি অন্যের ব্যাপারে নাক গলাবো।এমনটি যেন আমরা না ভাবি।সামাজিক দৃষ্টিকোণ থেকে হলেও আমরা যেন তাদের পাশে দাঁড়াই।

 

যারা বাবা মার সাথে ভালো ব্যবহার করেন তাদের প্রতি রইল আমাদের সাধুবাদ।কিন্তু যারা করেন না প্লিজ তারা দ্রুত ভালো হয়ে যান।দেখবেন পরকাল ইহকাল দু জায়গায় শান্তিতে থাকবেন।বাবা মা হারানোর যন্ত্রণা সেদিনই বুঝবেন যেদিন তারা থাকবে না।অনেককেই এরকম আফসোস করতে দেখা যায়।

আসুন আমরা বৃদ্ধদের প্রতি যত্নবান হয়।তাদের জীবনটাকে হাসি আনন্দে ভরে তুলি।আমাদের দিনের কিছু সময় হলেও তাদের সাথে কাটায়।কোথাও বেড়াতে গেলে তাদেরকে সাথে নিয়ে যাই। কোন কাজ করতে গেলে তাদের কাছে পরামর্শ চাই।আমরা যতই শিক্ষিত হই না কেন তারা আমাদের চেয়ে অবশ্যই  অনেক বেশি জ্ঞানী। 

 

 

 

 

 

 

 

 

Topics: বৃদ্ধাশ্রম সমাজ দায়বদ্ধতা ভালোবাসা মানবতা

বৃদ্ধদের প্রতি যত্নবান হোন ;একদিন আপনাকেও বৃদ্ধ হতে হবে!

Login to comment Login

You're not logged-in.

Login  — or —  Create Account
Latest Jobs

ক্লোজউই বাংলাদেশে তৈরি