Posted By

বাঙালি একমাত্র জাতি যারা নিজের খাদ্যে নিজেই বিষ মেশায়!

Health 31

বাঙালি একমাত্র জাতি যারা নিজের খাদ্যে নিজেই বিষ মেশায়! খাদ্যে ভেজাল নতুন কোন ঘটনা নয়।যুগ যুগ ধরে ভেজাল খাদ্য বাঙালির রক্তে মাংসে মিশে আছে।আর সেটা আমরা ভালোভাবেই হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছি।নিম্নমানের খাদ্যদ্রব্যে ভেজাল মিশিয়ে অধিক মুনাফা অর্জনই আমাদের মূল উদ্দেশ্য। 

 

কিন্তু এই অসৎ উদ্দেশ্য আজ জাতির জন্য কাল হয়ে দাড়িয়েছে।এই কালো বাজারি থেকে জাতির নিস্তার আছে কি?ভেজাল খাদ্য থেকে রক্ষা পাওয়া অধিক সূদুর প্রসারী ব্যাপার।উঠতে বসতে আমাদের মধ্যে ভেজাল খাদ্য ঢুকছে।পানি থেকে শুরু করে কোন খাদ্যই ভেজালমুক্ত নয়।

 

খাদ্যদ্রব্যে রাসায়নিক বিষ মিশিয়ে জনস্বাস্থ্য আজ চরম হুমকির মুখে।মুড়িকে সাদা, মচমচে ও লম্বা বানাতে ইউরিয়া ব্যবহূত হচ্ছে।ফল পাকানো ও সংরক্ষণের জন্য উচ্চমাত্রায় ফরমালিন প্রয়োগ করা হচ্ছে।আম, জাম, লিচু, কলা পাকাতে কারবাইড ও সংরক্ষণে ফরমালিন ব্যবহূত হচ্ছে।বিস্কুট, সেমাই, নুডলস, আইসক্রীম ও মিষ্টিকে আকর্ষণীয় করতে কাপড়ের রং মিশানো হচ্ছে।ফলের রস, জুস ও সফট ড্রিংক পাউডারে কেমিক্যাল ও কৃত্রিম রং মেশানো হচ্ছে।মসলা, হলুদ ও মরিচের গুড়ায় কাঠ ও ইটের গুড়া মেশানো হচ্ছে।কসমেটিক্সে ক্যান্সারের উপাদান লেড, মারকারি ও ডাই, শুটকিতে কীটনাশক, সয়াবিনে পামওয়েল প্রয়োগ হচ্ছে।মুরগিতে উচ্চমাত্রার এন্টিবায়োটিক ও ভ্যাকসিন ব্যবহূত হচ্ছে।মিনারেল ওয়াটারের নামে অপরিশোধিত পানি সরবরাহ হচ্ছে।

 

কি খাবেন? কিভাবে খাবেন? নিজে ভাবুন! অন্যকে ভাবতে দিন।বাঙালির আরো অনেক আবিস্কার আছে যা হয়তো আমরা জানি না।বাঙালি চায় রাতারাতি কোটিপোটি হতে জাতিকে ধ্বংস করার বিনিময়ে।নিজে খাদ্যে রাসায়নিক ও ক্ষতিকর দ্রব্য মিশায়, আবার নিজেই ঐ খাদ্য খায়।এই নিরব ঘাতক বিষ আমাদের দেহকে কুঁড়ে খাচ্ছে।বাঙালির কোন খাদ্যই দূষণমুক্ত নয়।এই চক্রকে দমন করতে সরকারের কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে। আসুন আমরা সবাই মিলে সরকারের পাশাপাশি এই চক্রকে প্রতিহত করি! জাতিকে ধ্বংসের হাত থেকে বাঁচাই।

Topics: খাদ্যে ভেজাল বিষক্রিয়া

বাঙালি একমাত্র জাতি যারা নিজের খাদ্যে নিজেই বিষ মেশায়!

Login to comment login

Latest Jobs