Posted By

রিমোট জব সমাচারঃ রিমোট জব কি এবং সুবিধা-অসুবিধা সমূহ

Career 157

রিমোট জব শব্দটা আজকাল অনেকেই শুনেছেন। তবে আমাদের দেশে এ ধরনের জবের প্রচলনটা খুব বেশী না থাকায় এর সাথে পরিচয়টাও আমাদের অনেকেরই নেই। আজকের পোস্টে আমরা জানব রিমোট জব সম্পর্কে। আরও জানব এর সুবিধা এবং অসুবিধা গুলো।

রিমোট জব কি?

যদি রিমোট জবের শাব্দিক অর্থ করি তাহলে এর মানে দাঁড়ায় "দূরবর্তী চাকুরী/কাজ"। অর্থাৎ, রিমোট জব হল এমন কোন চাকুরী যা আপনি ঘরে বসেই করতে পারেন। আর এর মাধ্যম হিসেবে ব্যবহৃত হয় কম্পিউটার, ইন্টারনেট কিংবা অন্য কোন উপযুক্ত টেকনোলজি। আমরা গতানুগতিক যে চাকুরীগুলো করে থাকি সেগুলোতে মূলত কাজ করার জন্য অফিসে উপস্থিতি বাধ্যতামূলক। কিন্তু রিমোট জব আপনি আপনার ইচ্ছেমত যেকোন জায়গায় থেকে করতে পারবেন। এর জন্য প্রয়োজন নেই অফিসে বাধ্যতামূলক উপস্থিতি কিংবা বাঁধাধরা নিয়মের চাপ। এই ধরনের চাকুরীর মূল উদ্দেশ্য নির্দিষ্ট কাজটি নিজের সর্বোচ্চ সুযোগ-সুবিধার মধ্যে থেকে সম্পন্ন করা। সময় বদলানোর সাথে সাথে বদলে যাচ্ছে আমাদের চাকুরীর ধরন এবং প্রেক্ষাপট। চাকুরীদাতা এবং চাকুরিজীবী উভয় পক্ষই বিভিন্ন দিক দিয়ে রিমোট জবের কারণে লাভবান হচ্ছেন। এর ফলে আমাদের দেশের অনেকেই ঘরে বসেই বিদেশী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠিত কোম্পানীতেও কাজ করার সুযোগ পাচ্ছেন। নিজের সর্বোচ্চ সুবিধায় থেকে চাকুরী করতে পারার ফলে আমাদের দেশেও জনপ্রিয়তা বাড়ছে রিমোট জবের।

রিমোট জবের সুবিধা সমূহ

অনেক সুযোগ সুবিধার কারণেই মূলত রিমোট জবের জনপ্রিয়তা এখন তুঙ্গে। চলুন জেনে নিই রিমোট জবের এমন কিছু সুবিধা সমূহঃ

  • রিমোট জবের সবচেয়ে বড় যে সুবিধাটি তা হল দুনিয়ার যেকোন জায়গায় বসে আপনি আপনার কাজ করতে পারবেন। কারণ এই চাকুরীর জন্য নেই কোন অফিসের বাধ্যবাধকতা। কোথাও ঘুরতে যাবেন ভাবছেন কিংবা জরুরী কোন কাজে যেতে হবে? গতানুগতিক চাকুরীতে তার জন্য আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে ছুটির জন্য কিংবা বসের কাছে করতে হবে হাজার জবাবদিহী। কিন্ত রিমোট জবে নেই এসব ঝামেলা। যেহেতু রিমোট জবে নেই কোন অফিস করার বাধ্যবাধকতা। তাই আপনি আপনার কাজটুকু করে দিলেই আপনাকে আর কোন জবাবদিহিতার মুখে পড়তে হবেনা। তাই আপনি এখন দুনিয়ার কোন প্রান্তে আছেন। সেটা মূখ্য বিষয় নয়! সাথে ল্যাপটপ আর নেট কানেকশন থাকলেই যথেস্ট। আপনার নির্দিষ্ট কাজটুকু করলেই আপনার মুক্তি। কোথায় বসে করেছেন সেটার জবাবদিহীতা আপনাকে করার বিন্দুমাত্র প্রয়োজন নেই।

  • শুধু জায়গার ক্ষেত্রেই ছাড় নয়! অনেক রিমোট জবে আপনি পাবেন নিজের সুবিধামত সময়ে কাজ করে দেয়ার সুবিধা। চাকুরী জীবনে নির্দিষ্ট সময়ে কাজ করার বাধ্যবাধকতা বেশীরভাগ সময় আমাদের ব্যক্তিগত এবং পারিবারিক জীবনের অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজও এলোমেলো করে ফেলে। তবে রিমোট জবে নেই সেই বাধ্যবাধকতা। ফলে চাকুরী জীবনের পাশাপাশি আপনার ব্যক্তিগত এবং পারিবারিক জীবনটাও পায় পূর্ণতা।

  • রিমোট জবে আপনি আপনার পূর্ণ স্বাধীনতা ব্যবহারের ফলে আপনার কর্মদক্ষতাও বৃদ্ধি পায় বহুগুন। কারণ, গবেষণায় এটা প্রমানিত যে, মানুষ গতানুগতিক চাকুরী জীবনে অফিসের চাপের কারনে প্রডাক্টিভ হতে পারেনা। কিন্তু নিজের সুবিধামত কাজ করতে পাওয়ার ফলে মানুষ তার প্রডাক্টিভিটি বাড়াতে সক্ষম হয়।

  • রিমোট জবে সাধারণত চাকুরীদাতারা অভিজ্ঞ ব্যক্তিদেরকেই নিয়োগ দিয়ে থাকেন। আর অভিজ্ঞদের বেতনের অংক সম্পর্কে আমরা খুব ভালই ধারণা রাখি। তাই নিঃসন্দেহে এ ধরনের চাকুরীতে ভালো অংকের বেতনেরও সুবিধা রয়েছে।

  • শুধু ভালো অংকের উপার্জনই নয়। রিমোট জব আপনাকে খরচ বাঁচাতেও দারুনভাবে সহায়তা করে। গতানুগতিক চাকুরীতে আমাদের উপার্জনের একটা বিশাল অংশ চলে যায় অফিস যাতায়াত এবং সংশ্লিষ্ট অনেক খরচে। রিমোট জবে এধরনের খরচের কোন খাত নেই। তাই অতিরিক্ত খরচ বাঁচাতেও সুবিধা দেয় রিমোট জব।

  • শুধু তো চাকুরীজীবীদের জন্য রিমোট জবের সুবিধাই আলোচনা করা হল। শুধু রিমোট জব যারা করেন তারাই এর সুবিধা পান না। রিমোট জব যারা দিয়ে থাকেন সেইসব চাকুরীদাতাদেরও রয়েছে কিছু সুবিধা। রিমোট জবের মাধ্যমে আপনি আপনার পছন্দমত দুনিয়ার যেকোন ব্যক্তিকে নিয়োগ দেওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন। ফলে নির্দিষ্ট একটি এলাকায় যোগ্য ব্যক্তি খুঁজতে সীমাবদ্ধ থাকার প্রশ্নই আসেনা। এছাড়া আপনি আপনার অধীনে কাজ করা ব্যক্তিদের কাছে ২৪/৭ সাপোর্ট পাবেন। আর অফিস চালানোর খরচের তো প্রশ্নই আসেনা। এসব কিছু দিক দিয়ে বিবেচনায় শুধু চাকুরীজীবীদেরই সুবিধা নয়। রিমোট জবের ফল ভোগ করতে পারেন চাকুরীদাতা প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তিও।


রিমোট জবের অসুবিধা সমূহ

শুধু তো সুবিধা সমূহই জানা হল। তবে যে জিনিসের সুবিধা থাকে তার অসুবিধা থাকাও অস্বাভাবিক কিছু না। রিমোট জবেও আছে এমন কিছু অসুবিধা। চলুন জেনে নেয়া যাকঃ

  • শুধু তো অফিস না করার সুযোগ গুলোই তুলে ধরা হলো। কিন্ত কখনও কি ভেবে দেখেছেন যে, একটা চাকুরীজীবনে অফিসেরও রয়েছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। রিমোট জবে অফিসের সংস্কৃতির অভাববোধটা অনেক সময় বড় হয়ে দেখা দেয়। অফিসে কাজ করলে সহকর্মী এবং ঊর্ধ্বতনদের কাছে সরাসরি সহায়তা নেয়া যায়। কিন্ত রিমোট জবে এধরনের সুবিধা একেবারেই নেই।

  • রিমোট জবে খুব একটা বাঁধাধরা নিয়ম না থাকায় গতানুগতিক চাকুরীগুলোর তুলনায় শৃঙ্খলাটা তুলনামূলকভাবে অনেক কম থাকে। আর শৃঙ্খলতাহীন জীবন কখনই সুখের হয়না।

  • অফিসের পরিবেশটা মূলত শুধু কাজ কর্মের জন্যই। কিন্ত বাসা-বাড়ির পরিবেশটা কিন্ত আমাদের দেশে কাজের জন্য সহায়ক নয়। তাই বাসা-বাড়িতে কাজে পরিবেশটা অনেক প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে রিমোট জবে।

  • রিমোট জবে স্বাধীনতা বেশী থাকায় ব্যক্তিগত জীবনের সাথে কর্মজীবনের তালগোল পাকিয়ে ফেলাটাও খুব একটা অস্বাভাবিক না।

Topics:

রিমোট জব সমাচারঃ রিমোট জব কি এবং সুবিধা-অসুবিধা সমূহ

Login to comment login

Latest Jobs